অন্যতম আতঙ্কের নাম ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক।

সিলেট জেলা জৈন্তাপুর রিপোর্টার; রোজিনা আক্তার।
  • Update Time : Tuesday, March 2, 2021
  • 11 Time View

অন্যতম আতঙ্কের নাম হয়ে দাঁড়িয়েছে সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক। ব্যস্ততম এই মহাসড়কে প্রায় প্রতিদিনই ঘটছে ছোটবড় দুর্ঘটনা। ঘটছে প্রাণহানি। বেশিরভাগ দুর্ঘটনা ঘটছে মহাসড়কের সিলেট বিভাগের অংশে। সড়ক ও জনপথের (সওজ) পর্যবেক্ষণে এই দুর্ঘটনার জন্য সাতটি কারণ চিহ্নিত করা হয়েছে। দুর্ঘটনা রোধে সমস্যাগুলোর সমাধান প্রয়োজন বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা। বছর দেড়েক আগেও সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের স্থানে স্থানে ছিল খানাখন্দ। কিন্তু এখন রাস্তার অবস্থা আগের চেয়ে অনেক ভালো। সংস্কার করা হয়েছে মহাসড়কের বেহাল অংশ। কিন্তু এর পরও থামছে না দুর্ঘটনা। প্রায় প্রতিদিনই মৃত্যুর মিছিলে যুক্ত হচ্ছে লাশের সংখ্যা। সর্বশেষ ২৬ ফেব্রুয়ারি ভোর সাড়ে ৬টার দিকে মহাসড়কের সিলেট জেলার দক্ষিণ সুরমার রশিদপুরে লন্ডন এক্সপ্রেস ও এনা পরিবহনের বাসের মধ্যে ঘটে ভয়াবহ দুর্ঘটনা। এতে এক চিকিৎসকসহ মারা যান আটজন। আহত হন দুই বাসের আরও ৩৪ যাত্রী। সওজ সিলেটের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী উৎপল সামন্তের মতে, সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে দুর্ঘটনার জন্য যেসব কারণ দায়ী তার মধ্যে রয়েছে গতির প্রতিযোগিতা ও অবৈধ ওভারটেক, ধারণক্ষমতার চেয়ে বেশি পণ্য বোঝাই, অবৈধভাবে সিএনজি অটোরিকশাসহ অন্যান্য যানবাহন চলাচল,।
ছেড়ে আসা বাসের চালক ও যাত্রীরা মধ্যরাতের পর হাইওয়ে রেস্টুরেন্টগুলোতে খাবার খান। ক্লান্তির কারণে এরপর তাদের মধ্যে ঝিমুনি চলে আসে। ফলে প্রায়ই চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুর্ঘটনা ঘটান। যাত্রী ও পথচারীদের অসতর্কতা।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category